আদালত

ksrm

মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৭ (১৮:৫৯)

সাবেক বিচারপতি জয়নুলকে দেয়া চিঠির বৈধতা পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তি

হাইকোর্ট

দুর্নীতির অনুসন্ধান বন্ধে আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি মো. জয়নুল আবেদীনের দুদকে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের দেয়া চিঠির বৈধতা পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তি করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করা হয়েছে।

রায়ে বলা হয়, বিচারপতি জয়নুল আবেদীনের বিষয়ে আপিল বিভাগের প্রশাসনিক ক্ষমতাবলে দেওয়া চিঠিটি নিছক দাপ্তরিক যোগাযোগ বলে তা সুপ্রিম কোর্টের মতামত বলে বিবেচিত হতে পারে না। এটিসহ সাত দফা পর্যবেক্ষণ দিয়ে চিঠির বৈধতা প্রশ্নে রুল নিষ্পত্তি করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

পর্যবেক্ষণে আদালত জানিয়ছে, ওই চিঠির মাধ্যমে একটি বার্তা দেয়া হয়েছে যে আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ফৌজদারি কার্যক্রম থেকে দায়মুক্তি পেতে পারেন। কিন্তু একমাত্র রাষ্ট্রপতি ছাড়া কেউ এ ধরনের দায়মুক্তি পেতে পারেন না তাও রাষ্ট্রপতির দায়িত্বকালীন সময়ে।

পর্যবেক্ষণে আরও বলা হয়, বিচারপতি জয়নুল আবেদীন সম্পর্কে দুদকের অনুসন্ধানপ্রক্রিয়া আদৌ সন্তোষজনক নয়। সাধারণ কারণ, দীর্ঘ সাত বছরেও ওই প্রক্রিয়া শেষ হয়নি। কোনো অবসরপ্রাপ্ত বিচারকের বিরুদ্ধে তদন্ত বা অনুসন্ধান পরিচালনায় সংশ্লিষ্ট তদন্তকারী কর্তৃপক্ষ বা এজেন্সির বাড়তি সতর্কতা ও তদারকি থাকা উচিত। এটি বিবেচনায় নেয়া উচিত এর সঙ্গে বিচার বিভাগের মর্যাদার পাশাপাশি বিচারের মান, জনগণের আস্থা এবং অপ্রয়োজনীয়ভাবে কেউ যাতে হয়রানির শিকার না হন সেটি জড়িত থাকে।

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি জয়নুল আবেদীনের সম্পদের হিসাব চেয়ে ২০১০ সালে নোটিশ পাঠায় দুদক। দুদক সূত্র জানায়, জয়নুল আবেদীনের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের একটি অভিযোগের প্রাথমিক তদন্তে আয়ের সঙ্গে অর্জিত সম্পদ সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বলে তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে।

গতকাল এ দুই বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন নির্ধারণ করে।

এর আগে গত ৩১ অক্টোবর এ বিষয়ে জারি করা রুলের শুনানি শেষে মামলাটি রায় ঘোষণার জন্য অপেক্ষমাণ রাখা হয়।

ওই দিন আদালতে শুনানি করেন হাইকোর্ট নিযুক্ত অ্যামিকাস কিউরি (আদালতের বন্ধু) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন এবং বিচারপতি জয়নুলের পক্ষে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।

দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান। এর আগে শুনানি করেন অপর দুই অ্যামিকাস কিউরি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী প্রবীর নিয়োগী ও এএম আমিন উদ্দিন।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

জিয়া চ্যারিটেবল মামলার রায় ২৯ অক্টোবর

খালেদার অনুপস্থিতিতে বিচারকাজ চলবে

খালেদা জামিন বাড়ল ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত বৃদ্ধি

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ আসামিপক্ষের আইনজীবীদের

তারেকের সম্পৃক্ততার প্রমাণ মিলেছে ২য় তদন্ত প্রতিবেদনে

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের

১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, ১৯ জনের যাবজ্জীবন, ১১ সরকারি কর্মকর্তাকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা

মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দানকারীদের নেতৃত্বশূন্য করতেই গ্রেনেড হামলা

দুই জঙ্গি আস্তানায় অভিযান, নিহত ২

ভেঙে গেল ২০ দলীয় জোট

মতবিরোধ থাকলেও নির্বাচন পরিচালনায় ব্যত্যয় ঘটবে না: সিইসি

প্রেস কাউন্সিল শক্তিশালী করতে আইন সংশোধন: ইনু